গৌরনদীতে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পেল স্কুলছাত্রী

গৌরনদীতে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পেল স্কুলছাত্রী

গৌরনদী প্রতিনিধি ॥ জেলার গৌরনদী উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিপিন চন্দ্র বিশ্বাসের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে নামের অভিশাপ থেকে রক্ষা পেয়েছে সপ্তম শ্রেণীরএক স্কুল ছাত্রী (১৪)। শনিবার সকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিপিন চন্দ্র বিশ্বাস জানান, বার্থীতাঁরা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে (১৪) বাল্যবিয়ে দেওয়ার খবর পেয়ে খাঞ্জাপুর ইউনিয়নের বাগিশেরপাড় গ্রামের ওই ছাত্রীর বাড়িতে উপস্থিত হয়ে বাল্যবিয়ে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এসময় ছাত্রীর পিতা খলিল কাজী তার কন্যার ১৮ বছর পূর্ন না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দিবেননা মর্মে লিখিত মুচলেকা দিয়েছেন। পাশাপাশি প্রতিনিয়ত ওই ছাত্রীর খোঁজখবর নেয়ার জন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও গ্রামপুলিশকে দায়িত্ব দিয়েছেন ইউএনও।

সূত্রমতে, পারিবারিকভাবে ওই ছাত্রীর সাথে মাদারীপুর জেলার সদর উপজেলার বাসিন্দা বাদল কাজীর পুত্র রাজমিস্ত্রী নুর ইসলামের বিয়ের দিন ধার্য্য করা হয় শুক্রবার। সেমতে বিয়ের প্যান্ডেলসহ অতিথি আপ্যায়নের সকল প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন করা হয়। বরযাত্রী কনের বাড়িতে আসার আগেই থানা পুলিশ নিয়ে স্কুল ছাত্রীর বাড়িতে হাজির হন উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিপিন চন্দ্র বিশ্বাস। তিনি নিজেই বাল্যবিয়ে বন্ধ করার পর ফোন করে বরকে বাল্যবিয়ে না করার জন্য বলেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *