প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফুফাতো ভাই বরিশালের আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহর সহধর্মীনি শহীদ জননী সাহান আরা বেগম আর নেই

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফুফাতো ভাই বরিশালের আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহর সহধর্মীনি শহীদ জননী সাহান আরা বেগম আর নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক :-  জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাগ্নে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার  ফুফাতো ভাই আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সদস্য, পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তিচুক্তি বাস্তবায়ন ও পরিবীক্ষণ কমিটির আহবায়ক (পূর্ণ মন্ত্রী পদমর্যাদা), বরিশাল-১ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহর সহধর্মীনি, বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহর মাতা বীর মুক্তিযোদ্ধা, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ভয়াল কালরাতের প্রত্যক্ষদর্শী ও গুলিবিদ্ধ, সন্তানহারা শহীদ জননী সাহান আরা বেগম হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে রবিবার দিবাগত রাত সাড়ে এগারোটার দিকে ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহির…..রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৭০ বছর।

তিনি স্বামী, ৩ পুত্র ও ১ কন্যাসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন, নাতী-নাতনী, গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। সোমবার (৮ জুন) মরহুমার লাশ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় জানাজা শেষে বরিশালে দাফন করা হবে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মরহুমার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করে তার শোকার্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের শহীদ সুকান্ত আব্দুল্লাহর মা সাহান আরা বেগম ছিলেন বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি, কেন্দ্রীয় মহিলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব এবং বরিশাল আওয়ামী লীগের ত্যাগী ও নির্যাতিত নেতাকর্মীদের একমাত্র আশ্রয়স্থল।

বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য এ্যাডভোকেট তালুকদার মোঃ ইউনুস জানান, গত শুক্রবার হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার পর তাকে (সাহান আরা বেগম) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই রবিবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে।

তার মৃত্যুতে পুরো বরিশালজুড়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। বিভিন্ন রাজনৈতিক, প্রশাসনিক কর্মকর্তা, সামাজিক, মুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দরা মরহুমার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *