শ্রীমঙ্গলে অভিজাত রেস্টুরেন্ট পানসীর বিরুদ্ধে  কোমল পানি পরিবেশন করায় অভিযোগ

শ্রীমঙ্গলে অভিজাত রেস্টুরেন্ট পানসীর বিরুদ্ধে  কোমল পানি পরিবেশন করায় অভিযোগ

 মৌলবীবাজার প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে অভিজাত রেস্টুরেন্ট পানসীর বিরুদ্ধে  কোমল পানি পেপসি পরিবেশন করায় জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ করে মোঃ নাজমুল হক শাকিল নামে এক ভোক্তা জরিমানার ২৫ ভাগ সমান  নগদ অর্থ ৫ হাজার টাকা পেয়েছেন।
বুধবার (৭ এপ্রিল) দুপুরে জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর,মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয়ে অভিযোগকারী শাকিল শ্রীমঙ্গলের ভানুগাছ সড়কে অবস্থিত পানসী রেস্টুরেন্টের বিরুদ্ধে খাবার খেতে গিয়ে মেয়াদোত্তীর্ণ পেপসী পরিবেশনের একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এসময় অভিযোগটি নিষ্পত্তির জন্য উভয় পক্ষের উপস্থিতিতে শুনানী অনুষ্ঠিত হয়। শুনানীতে পানসী রেষ্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ তাদের ভূল স্বীকার করেন।

পরবর্তীতে অভিযোগটির সত্যতার প্রেক্ষিতে পানসী রেষ্টুরেন্টকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় এবং ভবিষ্যতে খাদ্য দ্রব্য পরিবেশন করতে আরো সতর্ক থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়। জরিমানার অর্থ পানসী রেষ্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ তাৎক্ষণিক পরিশোধ করেন এবং আইন অনুযায়ী অভিযোগকারী মো: নাজিমুল হক শাকিলকে জরিমানার ৫ হাজার টাকা তাৎক্ষণিক প্রদান করা হয়।

জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোঃ আল-আমিন বলেন,শাকিল নামে একজন ভোক্তা পানসীতে খাবার খেতে গেলে কতৃপক্ষ তাঁকে মেয়াদোত্তীর্ণ পেপসি পরিবেশন করেন কর্তৃপক্ষ। পরে তিনি তাৎক্ষণিক বিষয়টি জানালে পেপসিটি তাদের নয় বলে অস্বীকার করলে সাথে সাথে তিনি পানসীর ফ্রিজে রাখা আরো অনেক পেপসি মেয়াদোত্তীণ রয়েছে বলে দেখতে পান এবং সেটির ভিডিও সংরক্ষণ করে জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয়ে অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন,এবিষয়ে নাজমুল হক শাকিল এর অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে জরিমানা করা হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *