ভীষ্মদেব বাড়ৈ এর কবিতা “ক্যাপিটালিজম স্যোসালিজম”

ভীষ্মদেব বাড়ৈ এর কবিতা “ক্যাপিটালিজম স্যোসালিজম”

ক্যাপিটালিজম-স্যোসালিজম
– ভীষ্মদেব বাড়ৈ

আমি নিজেকে বিক্রি করতে চাইলাম।
রাজা আসল, মন্ত্রী আসল,
আমলা, শাসক-প্রসাশক সবাই আসল।
প্রকাশ্যে আমার নিলাম হবে!

চারিদিকে হাক-ডাক, হৈ-চৈ
দামামা বাজল!
কারণ আমি ছিলাম সম্রাজ্ঞী ভিক্টোরিয়ার সপ্তম বংশধর।

আমাকে কিনে নিলো কেউ সহস্র ডলারে।

একে বলে- ক্যাপিটালিজম!

ওদিকে একজন কবিকে অন্য এক চৌরাস্তায় নিলামে তোলা হলো,
লক্ষ মানুষ হেঁটে যাচ্ছে
কেউ ফিরে দেখে না,
কেউ কেউ মুখ চিৎ করে, কন্ঠ ছ্যাৎ করে বলল- ‘ও কবি’!
একজন ভিখারী আকাশ জোড়া হাসতে হাসতে কবির কাছে এলো-
কবি হাসির ভাঁড়ে হাসতে-হাসতে বিক্রি হয়ে গেল,
একে বলে- স্যোসালিজম।

বহুদিনবাদে জানা গেল-
আমি ঐ ভিখারী কবির আদিম পুরুষ!

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *